Thursday, August 22, 2019

হজরত আবু বকর (রা) ও তার ব্যবসা


হজরত আবু বকর (রা) ও তার ব্যবসা


হযরত আবু বকর (রা)-এর ব্যবসা
মহানবী (সা)-এর ইন্তেকালের পর হযরত আবু বকর (রা) ইসলামের প্রথম খলিফা নির্বাচিত হলেন। মুসলিম দুনিয়ার বিশাল রাজকোষ তখন তার হাতে খলিফা হিসেবে যথেষ্ট বেতন আর ভাতা পাবেন-এটাই তো স্বাভাবিক। খলিফার খরচের ব্যাপারে প্রশ্ন তুলবে কে? আর তুলবেই বা কেন? একজন খলিফা হিসেবে তিনি তো বেতন ও ভাতার প্রকৃত হকদার
এত বড় খলিফা হলে কী হবে? হযরত আবু বকর (রা) তার বেতন-ভাতা ও রাজ সুবিধা নিয়ে মোটেও ভাবতেন না বায়তুলমাল থেকে সহজে কোনো কিছু গ্রহণ করতেও তিনি রাজি ছিলেন না হযরত আবু বকর (রা) কাপড়ের ব্যবসা করতেনআর এরই আয় দিয়ে কোনো রকমে সংসারের খরচ চালাতেন তাই খলিফা হয়েও পরদিনই তিনি কাপড় নিয়ে বাজারে গেলেন
এই ঘটনা হযরত উমর (রা)-এর নজরে পড়ল। আবু বক(রা)-এর এই কাণ্ড দেখে হযরত উমর (রা) যারপরনাই বিস্মিত হলেনহযরত উমর (রা) তাই হযরত আবু বকর (রা)-কে বললেন, মুসলিম জাহানের সম্রাট আপনিঅথচ আপনি কিনা কাপড় বিক্রি করতে বাজারে যাচ্ছেননা, খলিফা, এটা আপনাকে মানায় না।
হযরত উমর (রা)-এর কথা শুনে আবু বকর (রা) মোটেও খুশি হলেন না। বললেন, শুনুন উমর! খলিফা হয়েছি তো কী হয়েছে? খাওয়া-পরা করতে হবে না? তার জন্য তো আয়-রোজগার দরকারআর নিজের কাজ নিজে করব, এতে অসুবিধা কোথায়?
হযরত উমর (রা) আবু বকর (রা)-এর এই বক্তব্য মানতে রাজি হলেন না। হযরত উমর (রা) বললেন, খলিফা শুনুন, আপনি যা বলেছেন তা সঠিক নয়খলিফার তো মর্যাদা আছে। তা ছাড়া রাজ্য চালানোর জন্য আপনার প্রচুর সময় দরকারআর আপনি যদি নিজেই ব্যবসা করেন তা হলে রাজ্য চলবে কী করে?
হযরত উমর (রা) অবশেষে বিষয়টি নিয়ে সাহাবীদের মধ্যে আলোচনা করলেন। সবাই মিলে পরামর্শ করে আবু বকর (রা)-এর জন্য বায়তুলমাল থেকে ভাতার ব্যবস্থা করা হলো। তারপরও আবু বকর (রা) ভাতা গ্রহণ করতে দ্বিধাবোধ করতেন। তার শুধু চিন্তা প্রজাদের নিয়ে, তাদের সুখ-দুঃখ নিয়েহযরত আবু বকর (রা) ভাবতেন, তিনি নিজে সুখে থাকলে তো চলবে না! মৃত্যুর পর একদিন মানুষের জন্য তাকে আল্লাহর জবাবদিহি করতে হবে কী মহান মানুষ ছিলেন খলিফা হযরত আবু বকর (রা)! কী বিস্ময়কর ছিল তার অনুভূতি ।

No comments:

Post a Comment

Popular Posts