Friday, May 3, 2019

Hazrat Umar(ra) and his justice - উমার(রা) ও তার ন্যায়বিচার




উমর (রা)-এর বিচারে অহঙ্কার চূর্ণ

মিসর বিজয়ী সেনাপতির নাম আমর ইবনুল আস(রা) । তিনি এক সময় মিসরের গভর্ণর ছিলেনতার শাসনামলে মিসরের জনগণ বেশ সুখে-শান্তিতে দিন কাটাত কিন্তু তার ছিল এক বেয়াড়া ছেলে । ছেলেটি ছিল বেশ অহঙ্কারী সে পথে বের হলে অহংকারের সাথে চলত । সে নিজের চালচলন দ্বারা বুঝাত যে, সে গভর্নরের ছেলে। একদিন সে জনৈক মিসরীয় খ্রিষ্টানের এক ছেলেকে মারধর করল। লোকটি ছিল গরিব। তাই সে গভর্নরের কাছে অভিযোগ করার সাহস পেল না। বরং সে মুখ বুঝে তার দুঃখ হজম করল
কয়েকদিন পরের ঘটনা। জনৈক প্রতিবেশী মদীনা থেকে ফিরে খ্রিষ্টান লোকটিকে জানাল যে, ইসলামের ২য় খলিফা উমর (রা) একজন ন্যায়পরায়ণ শাসক জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে তার কাছে সবাই সমানকারও ওপর জুলুম হলে তিনি তা সহ্য করেন না। বরং তিনি ন্যায়বিচারের ব্যবস্থা করেন। এ কথা শুনে খ্রিষ্টান লোকটি সতেরো দিন সফর শেষে মদীনায় গিয়ে পৌছল। তারপর উমর (রা)-এর কাছে গভর্নরের ছেলের বিপক্ষে মোকদ্দমা দায়ের করল। হজরত উমর(রা)  - আমর বিন আস ও তার ছেলেকে মদিনায় তলব করলেন। অতঃপর এই মামলার শুনানীর ব্যবস্থা করলেন। নির্দিষ্ট দিনে উভয় পক্ষের সাক্ষ-প্রমান নেয়া হল। বিচারে হজরত আমর(রা) এর ছেলে দোষী বলে সাব্যস্ত হল। তারপর অভিযোগকারীকে বললেন তুমি গভর্ণরের ছেলের উপর প্রতিশোধ নাও যেভাবে সে তোমাকে প্রহার করেছিল। খলিফার আদেশ পেয়ে খ্রিস্টান ছেলেটি সাহস পেল। সে তার কিসাস নিয়ে নিল।
খলিফা উমরের(রা) এই ন্যায়পূর্ণ আচরণে খ্রিষ্টান লোকটি ও তার ছেলেটি খুশি হল। 

No comments:

Post a Comment

Popular Posts