মজার গল্প, উপন্যাস, গোয়েন্দা কাহিনী, ছোট গল্প, শিক্ষামূলক ঘটনা, মজার মজার কৌতুক, অনুবাদ গল্প, বই রিভিউ, বই ডাউনলোড, দুঃসাহসিক অভিযান, অতিপ্রাকৃত ঘটনা, রুপকথা, মিনি গল্প, রহস্য গল্প, লোমহর্ষক গল্প, লোককাহিনী, উপকথা, স্মৃতিকথা, রম্য গল্প, জীবনের গল্প, শিকারের গল্প, ঐতিহাসিক গল্প, অনুপ্রেরণামূলক গল্প, কাহিনী সংক্ষেপ।

Saturday, August 15, 2020

টেপাটেপি – ছোট গল্প – মজার গল্প - হাসির গল্প – ভূতের গল্প


টেপাটেপি – ছোট গল্প – মজার হাসির গল্প – ভূতের গল্প
টেপাটেপি  ছোট গল্প  মজার গল্প - হাসির গল্প  ভূতের গল্প
টেপাটেপি ছোট গল্প মজার গল্প - হাসির গল্প ভূতের গল্প 
এক ছিল টেপা। আর তার ছিল এক টেপি টেপার বয়স ছিল বেশি, টেপির কম। বুড়া ছিল রাগী, আর বদমেজাজী। সে টেপিকে হরহামেশা কটুকাটব্যের ওপর রাখতো শুধু কি তাই, চড় থাপ্পড় কিল ঘুষিও চালাত যখন তখন। ফলে সব সময়েই ভয়ে কুঁকড়ে থাকত টেপি তবু মারধরের কমতি ছিল না একবার এক ডাইনি বুড়ির দয়া হলো টেপির প্রতি।
সে বলল : তুমি এক কাজ কর। তোমার বুড়া তো সারা শরীরে তেল মেখে গোসল করে, তাই না!
টেপি : হ্যা, তাই করে।
পেত্নী : তাহলে কাজটা সহজ হবে।
টেপি : কেমন করে?
পেত্নী : ওইখানেই তো আমার কেরামতি। তুমি তেলের শিশির ভিতরে লুকিয়ে থাকবে। 
টেপি : আমি আস্ত মানুষটা তেলের শিশির ভিতর কেমন করে লুকাব?
পেত্নী : এই যে বললাম, সে আমার কেরামতি! তোমাকে ওইটুকু শিশির ভেতরে ঢুকিয়ে দিতে পারি বলেই না আমি তোমাদের ভাষায়, ডাইনি, জাদুগীরণি।।
টেপি : তেলের শিশির ভেতরে না হয় ঢুকলাম। কিন্তু তাতে কি হবে?
পেত্নী : তারপরেই তো মজা! বুড়াকে এমন জব্দ করব, যে আর তোমার গায়ে হাত তুলবে না। ডাইনি বুড়ি টেপিকে তেলের শিশির ভেতরে জাদুমন্ত্র দিয়ে ঢুকিয়ে দিল। টেপা বাড়ি এসে টেপিকে আর খুঁজে পায় না। শেষে ভাবল, নিশ্চয় পাড়া বেড়াতে বেরিয়েছে। যাকগে জাহান্নামে, সে বলে আমি তেল মেখে গোসল করে আসি।
তেলের শিশি খুলতেই টেপি বেরিয়ে আসে। ব্যাপার দেখে ভড়কে গিয়ে শিশির অর্ধেক তেল ঘরের মেঝের আঠালো মাটিতে ফেলে দেয় টেপা। আর তাতে পা পিছলে পপাত ধরণীতল। প্রচণ্ড ব্যথা পেয়ে রাগে 
ক্রোধে অগ্নিশর্মা হয়ে টেপিকে ধরতে যায় টেপা। টেপির সারা শরীর তখন তেলপিচ্ছিল তাই ধরতে পারবে কেন? আবার পড়ে গিয়ে কোমরে চোটপায় টেপা।
টেপি : মিনসে এখন মরদগিরি দেখাইও না।
টেপা বুড়া জব্দ হয়ে বলে : তোকে আর মারবনানে। তিন সত্যি করলাম। এখন গরম তেল-রসুনের সেক দিয়ে আমায় ভাল কর। সেই থেকে বুড়া আর মারে না

No comments:

Post a Comment

Popular Posts